GOVT SCHEME

Yuvashree Prakalpa 2024 – বাংলার যুবক-যুবতীরা প্রতি বছর পাবে ১৮০০০ টাকা! আবেদন করুন এই প্রকল্পে ।

মাসিক ১৫০০ টাকা করে হাত খরচা দেবে সরকার। রাজ্য সরকার কর্তৃক চালু হওয়া নতুন এই প্রকল্পের নাম যুবশ্রী প্রকল্প (Yuvashree Prakalpa 2024)।

Advertisement
   

Yuvashree Prakalpa 2024 – পশ্চিমবঙ্গের যুবক-যুবতীদের জন্য খুশির খবর। রাজ্য সরকার বেকারদের জন্য নিয়ে এলো নতুন প্রকল্প। প্রতিমাসে হাত খরচা পাবেন সবাই। মাসিক ১৫০০ টাকা করে হাত খরচা দেবে সরকার। রাজ্য সরকার কর্তৃক চালু হওয়া নতুন এই প্রকল্পের নাম যুবশ্রী প্রকল্প (Yuvashree Prakalpa 2024)। এই প্রকল্পের আবেদন পদ্ধতি, সুযোগ-সুবিধা ইত্যাদি সম্পর্কে জেনে নিন।

Advertisement

যুবশ্রী প্রকল্পের সুবিধা (Yuvashree Prakalpa 2024)

পশ্চিমবঙ্গ সরকার রাজ্যবাসীর জন্য বিভিন্ন স্কিম চালু করেছে বিগত কয়েক বছরে। কন্যাশ্রী, রূপশ্রী, যুবশ্রী, স্বাস্থ্য সাথী, খাদ্যসাথী, সবুজশ্রী, ঐক্যশ্রী, স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড সহ একাধিক জনকল্যাণমুখী প্রকল্পের সুবিধা পাচ্ছেন‌ জনতা। এরই মধ্যে একটি উল্লেখযোগ্য প্রকল্প হল যুবশ্রী প্রকল্প। ‌যেখানে প্রতিমাসে ১৫০০ টাকা করে প্রতি বছর মোট ১৮০০০ টাকা আর্থিক সাহায্য দেওয়া হবে।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now  

যুবশ্রী প্রকল্পের আবেদন যোগ্যতা।

Advertisement

1) প্রকল্পে আবেদন জানাতে হলে আবেদনকারী কে পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
2) আবেদনকারীকে মাধ্যমিক পাশের যোগ্যতা থাকতে হবে। অর্থাৎ মাধ্যমিক পাস না করলে এই প্রকল্পে আবেদন জানানো যাবে না।
3) আবেদনকারীর নামে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে এবং আবেদনকারীর আধার কার্ড এবং ভোটার কার্ড থাকতে হবে।

Advertisement

আরও পড়ুন – PM Surya Ghar Bijli Yojana – ভোটের আগেই ইলেকট্রিক বিল নিয়ে সুখবর! এতো ইউনিট ফ্রী করে দিল সরকার

যুবশ্রী প্রকল্পে আবেদনের জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট।

যুবশ্রী প্রকল্পে আবেদনের জন্য যে ডকুমেন্টগুলি প্রয়োজন সেগুলি হল- i) শিক্ষাগত যোগ্যতার মার্কশিট ii) ইনকাম সার্টিফিকেট iii) কাস্ট সার্টিফিকেট iv) আধার কার্ড v) ভোটার কার্ড vi) ব্যাংকের পাসবই vii)পাসপোর্ট সাইজ ছবি ইত্যাদি।

আবেদন জানাবেন কিভাবে?

1) এই প্রকল্পের আবেদন জানাতে হলে প্রথমে যেতে হবে (https://employmentbankwb.gov.in/) এই ওয়েবসাইটে।
2) অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যাওয়ার পর প্রার্থীরা ‘New Enrolment Job Seeker’ নামে একটি অপশন পাবেন। এই অপশনে ক্লিক করবেন ও ‘ACCEPT & CONTINUE’ করে এগিয়ে যাবেন। 
3) এরপর আবেদনপত্র পাবেন এবং সেখানে যাবতীয় তথ্যগুলি মন দিয়ে পূরণ করে নিতে হবে। কোন তথ্য প্রদান যেন ভুল না হয়।

4) এরপর আবেদনকারী নিজের পরিচয়পত্র হিসেবে আধার কার্ড ও ভোটার কার্ড সাবমিট করবেন। শিক্ষাগত যোগ্যতার ডকুমেন্ট ও অন্যান্য নথি জমা করতে হবে।
5) আবেদনের ফরম্যাটটি এবার A4 পেপারে প্রিন্ট করে নিন। আবেদনপত্রের সঙ্গে সমস্ত নথি যুক্ত করে ৬০ দিনের মধ্যে নিকটবর্তী এক্সচেঞ্জ অফিসে গিয়ে জমা করতে হবে।

আরও পড়ুন – Lakshmi Bhandar 2024 – লক্ষীর ভান্ডারে নতুন করে আবেদন করতে চাইছেন? কি কি কাগজপত্র লাগবে, এখনই জানুন

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *